কোটচাঁদপুরে মসজিদ থেকে নামায শেষে বাইরে আসতেই মসজিদের ইমামকে কুপিয়ে হত্যা

কোটচাঁদপুরে মসজিদ থেকে নামায শেষে বাইরে আসতেই মসজিদের ইমামকে কুপিয়ে হত্যাঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে রবিউল ইসলাম ভুট্রো (৪৩) নামে মসজিদের এক ইমামকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

নিহত রবিউল কোটচাঁদপুর উপজেলার রাঙ্গিয়ারপোতা গ্রামের ইরাদ আলীর ছেলে।

তিনি একজন কোরআনের হাফেজ ও স্থানীয় মসজিদের ইমাম ছিলেন। শুক্রবার ভোরে কোটাচাঁদপুর শহরে যাওয়ার সময় কাশিপুর ও নওদাগা গ্রামের মাঝামাঝি স্থানে পৌছালে তাকে হত্যা করা হয়। তবে স্থানীয়দের অনেকের ধারনা ব্যবসায়ীক বা অন্য কোন বিরোধের জের ধরে তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হতে পারে। কোটচাঁদপুর থানার ওসি বিপব কুমার সাহা জানান, ধারনা করা হচ্ছে ডাকাতের প্রস্তুতিকালে রবিউল ইসলাম সেখানে পৌঁছায়। রবিউল ইসলাম তাদের চিনে ফেলায় তাকে হত্যা করা হয়েছে। আশা করছি দ্রুতই হত্যা কারীদের সনাক্ত করা সম্ভব হবে। এদিকে সকালে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশ সুপার মিজানূর রহমান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার আলী শেখ। রবিউল ইসলাম ভুট্টোর স্ত্রী নার্গিস বেগম জানান, ফজরের নামাজ পড়ে তার স্বামী কোটচাঁদপুর শহর থেকে মালামাল নিয়ে কালীগঞ্জ শহরে আসছিলেন। এ সময় কোটচাঁদপুর থানার প্রায় ৬০০ গজ দুরে কাশিপুর নামক স্থানে তাকে কুপিয়ে ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। তিনি দোষীদের গ্রেফতার করে শাস্তির দাবী জানিয়েছেন। পুলিশ লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে এখনো কোন মামলা হয়নি।

২৯/১২/২০১৭ইং
বাংলা পত্রিকা

Leave a Reply