দৃষ্টি ফিরে না পেলেও সোনার হরিণ পেল সেই সিদ্দিকুর

দৃষ্টি ফিরে না পেলেও সোনার হরিণ পেল সেই সিদ্দিকুরপুলিশের টিয়ার গ্যাসের শেলের আঘাতে দৃষ্টিশক্তি হারানো রাজধানীর তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমান সরকারি চাকরি পেয়েছেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান এসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেডে তাকে চাকরি দেওয়া হয়েছে। ওই প্রতিষ্ঠানে সিদ্দিকুরকে টেলিফোন অপারেটর পদের নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছে। আগামী ১ অক্টোবর তিনি চাকরিতে যোগদান করবেন।

বুধবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহম্মদ নাসিম সিদ্দিকুর রহমানের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন।

চাকরির নিয়ম অনুযায়ী,সিদ্দিকুর রহমানকে এসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেডে টেলিফোন অপারেটর পদে এক বছরের জন্য অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এ সময় তার বেতন ধরা হয়েছে ১৩ হাজার টাকা। এর সঙ্গে তিনি আনুষঙ্গিক সব সুযোগ-সুবিধা পাবেন। এক বছর পর তার চাকরি স্থায়ী করা হবে। তখন তার বেতন হবে ২৩ হাজার টাকা। সঙ্গে আনুষঙ্গিক অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

সিদ্দিকুর রহমানের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ  নাসিম বলেন, ‘একটি দুঃখজনক ঘটনার মধ্য দিয়ে সিদ্দিকুর দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন। ঘটনাটি অনেক কষ্টের ও বেদনাদায়ক। তাকে সান্ত্বনা জানানোর ভাষা আমাদের নেই। একজন মানুষ দৃষ্টিশক্তি হারালে তার জীবন কতটা কষ্টের,তা সে ছাড়া অন্য কেউ বুঝবে না।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন,’সিদ্দিকুর চক্ষুবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে ভর্তি থাকাকালে তাকে দেখতে গিয়ে চাকরি দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলাম। প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পারাটা স্বস্তিদায়ক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় সিদ্দিকুরের খোঁজ নিয়েছেন। তার নির্দেশেই সিদ্দিকুরকে চাকরি দেওয়া হলো।’

সিদ্দিকুরের প্রতি সরকারের নজর থাকবে জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সে একটি চোখে ঈষৎ আলো দেখতে পাচ্ছে। তার চোখের আলো ফেরাতে যত চিকিৎসা লাগে,সরকার সে ব্যবস্থা করবে। একই সঙ্গে চাকরির পাশাপাশি সিদ্দিকুর যাতে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারে,সরকার তাতে সহায়তা করবে।

নিয়োগপত্র হাতে নিয়ে সিদ্দিকুর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন,শুরু থেকেই সরকার আমার পাশে ছিল। স্বাস্থ্যমন্ত্রী সব সময় আমার খোঁজখবর নিয়েছেন। এ জন্য তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

একই সঙ্গে তার প্রতি সহানুভূতি প্রকাশের জন্য কলেজের শিক্ষক,শিক্ষার্থী ও গণমাধ্যমকর্মীদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

যে পদে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে,তাতে তিনি খুশি কি-না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সিদ্দিকুর বলেন,আমার অনেক স্বপ্ন ছিল। কিন্তু এখন সেই চিন্তা করে লাভ নেই। কারণ,আমি এখন আগের অবস্থায় নেই। তবুও স্বপ্ন বাস্তবায়নে চেষ্টা চালিয়ে যাব। এ জন্য পড়াশোনা চালিয়ে যেতে চাই। আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব সিরাজুল হক খান,স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ,চক্ষুবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরীক্ষার রুটিন ও তারিখ ঘোষণাসহ কয়েকটি দাবিতে গত ২০ জুলাই রাজধানীর শাহবাগে শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচিতে পুলিশের টিয়ার শেলের আঘাতে গুরুতর আহত হন তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমান। দেশে-বিদেশে চিকিৎসা করালেও তার চোখের আলো ফেরেনি।